logo

ঢাকা, শুক্রবার ৫ ফাল্গুন, ১৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৭

orangebd logo
শিশুশ্রম আছে বলেই, শিশু নির্যাতন ঘটছে

গরিব-ধনী সব মা-বাবার মনে বিভিন্ন রকম স্বপ্ন আশা থাকে সন্তানকে নিয়ে, তার আদরের ছোট্ট শিশুটি একদিন সুশিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে দেশ ও জাতির কল্যাণে কাজ করবে। তাই সব বাবা-মা তাদের সাধ্যমতে চেষ্টা করেন সন্তানকে সুশিক্ষায় শিক্ষিত করতে। তবে কিছু দরিদ্র্য, গরিব বাবা-মার স্বপ্ন আশা যেন নিঃশেষ হয় দারিদ্র্যের যাতাকলে। পড়াশুনা তো দূরের কথা সন্তানকে তিন বেলার খাদ্য দিতেই তারা ব্যর্থ হন। এক সময় সন্তানকে ক্ষুধা থেকে বাঁচাতে, নিরুপায় হয়ে, বাধ্য হন বাবা সন্তানকে শ্রমে পাঠাতে। শুধু দরিদ্রতার কারণেই শিশুরা শ্রমে যুক্ত হয় না এর একাধিক কারণ আছে যেমন: বাবা-মায়ের বিবাহ বিচ্ছেদ, বা একাধিক বিয়ে, অকালে বাবা-মার মৃত্যু, পারিবারিক অশান্তি, সৎ মায়ের অত্যাচার, শারীরিক, মানসিক ও যৌন নির্যাতন, প্রাকৃতিক দুর্যোগ, নদী ভাঙন ইত্যাদি।

অবোধ শিশুরা কিছু বলতে পারেনা, পেটের দায়ে নিরুপায় হয়ে ঝুঁকিপূর্ণ কাজগুলোকে তাদের নিত্য নৈমিত্তিক পেশা হিসাবে মেনে নেয়। তারা জানেনা কোনটা ঝুঁকিপূর্ণ কাজ। এই কাজ করতে গেলে সে চিরদিনের জন্য পঙ্গুত্ব বরণ বা বড় কোন দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। তাদের লক্ষ্য থাকে এই কাজটি করতে পারলেই পেটে ভাত যাবে, নইলে না খেয়ে থাকতে হবে, বা মালিক মহাজনের নিষ্ঠুর নির্যাতনের শিকার হতে হবে। এসব অনেক শিশুশ্রমিককে মজুরি তো দেয়াই হয় না বরং তাদের ওপর চলে অমানুষিক নিষ্ঠুর শারীরিক, মানসিক, যৌন নির্যাতন। দেশে শিশুশ্রমিকদের প্রতি একশ্রেণীর মালিক বা মহাজন যে নির্যাতন চালায় তা দেশ ও জাতির জন্য লজ্জাজনক ও কষ্টদায়ক।

শিশু নির্যাতন কারোর কাম্য নয়। সামাজিক ন্যায়বিচারহীনতা এবং ওপর থেকে নিচ বিভিন্ন স্তরের শক্তি ও ক্ষমতার কেন্দ্রবিন্দুতে দুর্বৃত্তপরায়ন দেশ-প্রেমহীন, নৈতিক শিক্ষা, মূল্যবোধ, মায়া, মমতাহীন প্রবৃত্তির লোকের প্রাধান্য থাকায় এ ধরনের ঘটনাগুলো ঘটছে। শিশুশ্রম আছে বলেই, শিশু নির্যাতন ঘটছে অহরহ। সরকার ও রাজনৈতিক দলগুলোর সদিচ্ছা ছাড়া শিশুশ্রম সমস্যাগুলো সমাধান করা সম্ভাব নয়। বর্তমান সরকারের আমলে বলা যায় উন্নয়নের জোয়ার বইছে তবে দুঃখের বিষয়, সরকার ও দেশ বিদেশের সংগঠনগুলো আপসহীন কাজ করলেও তেমন উন্নতি হয়নি শিশুশ্রম ও শিশু নির্যাতন বন্ধে।

আমরা সচেতন মানুষ কেনইবা শুধু সরকারের দিকে তাকিয়ে থাকবো, আমাদের কী কোন দায়িত্ব কর্তব্য নেই শিশুশ্রম শিশু নির্যাতন রোধে। কথায় বলে ছোট ছোট মহৎ চেষ্টা যদি একটু সুনজরে দেখা তাহলে অনেক বড় অর্জনও সহজ হয়ে যায়। আজ আমরা সামর্থ্যবান নিজেরা যদি একে একে বদলে যাই, যদি একটি এতিম বা দরিদ্র শিশুর ভবিষ্যতের দায়িত্ব নেই, তাহলে অনেক কিছু করা যাবে।

শামীম মিয়া

আমদিরপাড়া, জুমারবাড়ী, সাঘাটা, গাইবান্ধা।

খবরটি পঠিত হয়েছে ১০১ বার
font
font
সর্বাধিক পঠিত
আজকের ভিউ
পুরোন সংখ্যা
Click Here
সম্পাদক - আলতামাশ কবির । ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক - খন্দকার মুনীরুজ্জামান । ব্যবস্থাপনা সম্পাদক - কাশেম হুমায়ুন ।
সম্পাদক কর্তৃক দি সংবাদ লিমিটেড -এর পক্ষে ৮৭, বিজয়নগর, ঢাকা থেকে মুদ্রিত এবং প্রকাশিত।
কার্যালয় : ৩৬, পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০। ফোন : ৯৫৬৭৫৫৭, ৯৫৫৭৩৯১। কমার্শিয়াল ম্যানেজার : ৭১৭০৭৩৮
ফ্যাক্স : ৯৫৫৮৯০০ । ই-মেইল : sangbaddesk@gmail.com
Copyright thedailysangbad © 2017 Developed By : orangebd.com.
close