logo

orangebd logo
মন্ত্রিসভায় প্রধানমন্ত্রী
আগামী নির্বাচন যাতে না হয় একটি মহল ষড়যন্ত্রে লিপ্ত
* দুর্নীতির মামলায় সাজার ভয়ে পালিয়েছেন খালেদা
রাকিব উদ্দিন

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন যাতে না হয়, সেজন্য একটি মহল ষড়যন্ত্র করছে- এমন শঙ্কা প্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, 'অরাজনৈতিক সরকার আসলে একটি মহলের নানা সুবিধা হয়। আবার অনির্বাচিত সরকারও ওই মহলটি ছাড়া চলতে পারে না। তবে আমরা কোন ভয়ে ভীত নই। সবাইকে চোখ-কান খোলা রাখতে হবে। সংবিধানের বিধিবিধান অনুযায়ী যথাসময়ে নির্বাচন হবে।'

প্রধানমন্ত্রী গতকাল সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকে অনির্ধারিত আলোচনায় এ মন্তব্য করেন বলে নাম প্রকাশ না করার শর্তে মন্ত্রিসভার একাধিক সদস্য সংবাদকে এ তথ্য জানান।

বৈঠক সূত্র আরও জানায়, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার হঠাৎ যুক্তরাজ্যে চলে যাওয়া নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন মন্ত্রিসভার একাধিক জ্যেষ্ঠ সদস্য। এ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, 'উনি আর দেশে আসবেন কিনা জানি না। মামলার ভয়ে হয়তো বিদেশে পালিয়েছেন।'

উনি (খালেদা জিয়া) এতিমদের টাকা পয়সা মেরেছেন, দুর্নীতি করেছেন উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'এ নিয়ে মামলা চলমান রয়েছে, এজন্য তার সাজাও হতে পারে। এই মামলার ভয়েই তিনি পালিয়ে গেছেন। এভাবে পিলখানায় বিডিআরের ঘটনার পরও তিনি গা-ঢাকা দিয়েছিলেন।'

জানা গেছে, মন্ত্রিসভায় গত ১৬ জুলাই নির্বাচন কমিশন (ইসি) ঘোষিত নির্বাচনী কর্মপরিকল্পনা (রোডম্যাপ) নিয়ে আলোচনা হয়। এতে অংশগ্রহণ করে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত, বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু, কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরীসহ মন্ত্রিসভার কয়েকজন জ্যেষ্ঠ সদস্য।

নির্বাচন সংক্রান্ত ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, 'সংবিধানের আলোকে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে। কীভাবে নির্বাচন হবে সেটা সংবিধানেই বলা আছে। এটা নির্বাচন কমিশনই দেখবে। তারা তাদের মতো করে কাজ করবে। এ নিয়ে আমাদের কথা বলার দরকার নেই। পক্ষে-বিপক্ষে মতামত ব্যক্ত করারও প্রয়োজন নেই। কিছু মানুষ আছে তারা চান নির্বাচন যাতে না হয়। নির্বাচন না হলে আর অনির্বাচিত ব্যক্তিরা ক্ষমতায় আসলে তারা ক্ষমতার ভাগ পায়।'

সরকার প্রধান আরও বলেন, 'আমরা চাই সব রাজনৈতিক দল নির্বাচনে আসুক। সব দল নির্বাচনে এলে ভালো হয়; নির্বাচন অধিকতর গ্রহণযোগ্য হয়। কিন্তু কোন দল যদি নির্বাচনে না আসে তাহলে আমাদের কিছু করার নেই।'

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, 'বিএনপি নামক দলটি যদি আরেকবার ক্ষমতায় আসে তাহলে দেশে পাকিস্তানি ভাবাদর্শ পুনঃপ্রতিষ্ঠা হবে। তারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধ্বংস করে দেবেন। এজন্য বিএনপিকে আমরা বিরোধীদল হিসেবেও দেখতে চাই না।'

মন্ত্রিসভার একজন সদস্য নাম প্রকাশ না করার শর্তে সংবাদকে বলেন, 'প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ইসি ঘোষিত রোডম্যাপ নিয়ে সবাইকে সতর্ক হয়ে কথা বলতে হবে। আবার দলের সভাপতি হিসেবে আমিও সব সময় কথা বলতে পারি না।'

মন্ত্রিসভার ওই সদস্য আরও জানান, 'ইসির রোডম্যাপ নিয়ে দলের অবস্থান জানাতে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে কথা বলার দায়িত্ব দিয়ে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী বলেছেন, এই রোডম্যাপ বাস্তবায়ন ও কার্যকারিতা দেখতে হবে। এজন্য কিছুটা সময় প্রয়োজন।'

এদিকে মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে রোডম্যাপ নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে সচিবালয়ে নিজ দফতরে ওবায়দুল কাদের বলেন, 'এ ব্যাপারে এ মুহূর্তে আওয়ামী লীগের যে বক্তব্য সেটা হচ্ছে এই রোডম্যাপটি বাস্তবায়নের অগ্রগতি দেখে আমরা কথা বলব। তারা যা বলেছেন তা রোডম্যাপ, আমরা বাস্তবায়ন প্রক্রিয়াটা দেখতে চাই।'

একাদশ সংসদ নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক ও প্রভাবমুক্ত করার লক্ষ্য নিয়ে দেড় বছরের কর্মপরিকল্পনা গত রোববার প্রকাশ করেছে কেএম নূরুল হুদা নেতৃত্বাধীন ইসি।

তবে বিএনপি মনে করছে, নির্বাচন কমিশন ঘোষিত রোডম্যাপে আগামী সংসদ নির্বাচন নিয়ে চলমান সংকটের সমাধান হবে না। এ ব্যাপারে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, কোনো আলোচনা না করে এই রোডম্যাপ দিয়ে সমস্যার সমাধান হবে না।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও তার ছেলে তারেক রহমানকে ইঙ্গিত করে বলেন, 'একজন মামলার ভয়ে বিদেশ থেকে আসে না, কতদিন হয়ে গেলে তিনি আর আসেন না। আরেকজন আবার টেমস নদীর পাড়ে গেলেন। উনি যাচ্ছেন, আমাদের এ ব্যাপারে আপত্তি বা মন্তব্য থাকার কথা নয়।'

ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, 'খালেদা জিয়া নাও ফিরতে পারেন এমন জনশ্রুতি রয়েছে। গত শনিবার থেকে ফেসবুকে দেখছি, টুইটারে দেখছি তার স্ট্যাটাস, এতো বেশি সময়ের জন্য একটি বড় দলের চেয়ারপারসন বিদেশে যাচ্ছে, এখন জনশ্রুতি হচ্ছে তিনি কি মামলার ভয়ে পালিয়ে গেলেন, তিনি কি মামলার ভয়ে ফিরে আসবেন না। মামলায় ১৫০ বার আদালতে সময় চাওয়ার পর এই সন্দেহটা ঘনীভূত হচ্ছে, জনগণের মধ্যে এই গুঞ্জনটা শাখা প্রশাখা বিস্তার করছে।'

যুুুক্তরাজ্য থেকে দেশে ফিরে খালেদা জিয়া নির্বাচনী রোডম্যাপ বা সহায়ক সরকার গঠনের বিষয়ে ঘোষণা দিতে পারেন- এমন বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে ওবায়দুল কাদের বলেন, 'শেখ হাসিনার মতো ওই ওয়ান ইলেভেনের সময় সাহস করে তিনি ফিরে আসবেন কিনা, মামলার ভয়ে সময় আবার বর্ধিত হবে কিনা, ফিরে আসার বিষয় সেটা কেবল সময়ই বলে দেবে।'

খবরটি পঠিত হয়েছে ১০১ বার
font
font
সর্বাধিক পঠিত
আজকের ভিউ
পুরোন সংখ্যা
Click Here
সম্পাদক - আলতামাশ কবির । ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক - খন্দকার মুনীরুজ্জামান । ব্যবস্থাপনা সম্পাদক - কাশেম হুমায়ুন ।
সম্পাদক কর্তৃক দি সংবাদ লিমিটেড -এর পক্ষে ৮৭, বিজয়নগর, ঢাকা থেকে মুদ্রিত এবং প্রকাশিত।
কার্যালয় : ৩৬, পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০। ফোন : ৯৫৬৭৫৫৭, ৯৫৫৭৩৯১। কমার্শিয়াল ম্যানেজার : ৭১৭০৭৩৮
ফ্যাক্স : ৯৫৫৮৯০০ । ই-মেইল : sangbaddesk@gmail.com
Copyright thedailysangbad © 2017 Developed By : orangebd.com.
close