logo

orangebd logo
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৮ দিনব্যাপী বৈশাখী উৎসব শুরু
বাঙালি পরাজিত হওয়ার জাতি নয় : খন্দকার মুনীরুজ্জামান
প্রতিনিধি, ব্রাহ্মণবাড়িয়া

গুণীজনদের সম্মাননা, বিষয়ভিত্তিক আলোচনা ও মলয়া সংগীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শুরু হয়েছে আট দিনব্যাপী বৈশাখী উৎসব। বুধবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সাহিত্য একাডেমি আয়োজিত এ উৎসব শুরু হয় স্থানীয় শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত ভাষা চত্বরে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন দৈনিক সংবাদের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক খন্দকার মুনীরুজ্জামান।

সাহিত্য একাডেমির সভাপতি কবি জয়দুল হোসেনের সভাপতিত্বে 'অসাম্প্রদায়িক রাজনীতির যুগলবন্দী ব্যরিস্টার আবদুল রসুল ও শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত' শীর্ষক আলোচনায় বক্তব্য রাখেন দৈনিক ইত্তেফাক ও বিটিভির জেলা প্রতিনিধি মোহাম্মদ আরজু, ঠাকুর জিয়াউদ্দিন আহমেদ প্রমুখ। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দৈনিক সংবাদের জেলা প্রতিনিধি মো. সাদেকুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক একেএম শিবলী, আসাদুজ্জামান কল্লোল প্রমুখ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি আল আমীন শাহীন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সাহিত্য একাডেমির পরিচালক প্রাবন্ধিক মানবর্দ্ধন পাল। অনুষ্ঠানের শুরুতেই ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ঐতিহ্যের মলয়া সংগীত পরিবেশন করে নবীনগর সাতমোড়ার আনন্দ আশ্রমের শিল্পীরা।

খন্দকার মুনীরুজ্জামান বলেন, বাঙালির সাহিত্য সংস্কৃতি এখন ক্রান্তিলগ্নে এসে উপস্থিত হয়েছে। বৈশাখ নিয়ে, আমাদের সাহিত্য সংস্কৃতি নিয়ে এখনও ষড়যন্ত্র হচ্ছে, মৌলবাদকে চাপিয়ে দেয়ার চেষ্টা হচ্ছে এবং আমাদের বিভিন্ন অপশক্তির বিরুদ্ধে লড়াই করতে হচ্ছে। তবে বাঙালি হারার জাতি নয়, যুগে যুগে অপশক্তির বিরুদ্ধে লড়াই করে জয়ী হওয়ার জাতি।

তিনি বলেন, অসাম্প্রদায়িক চেতনা বিকশিত করতে ব্যারিস্টার এ রসুল এবং শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত অনন্য ভূমিকা রেখেছেন। অসাম্প্রদায়িক চেতনার ক্ষেত্রে ব্যারিস্টার এ রসুল এক অনন্য প্রেরণার উৎস এবং শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত ভাষার জন্য সাহসী ভূমিকা রাখায় আমরা ভাষা পেয়েছি এবং মহান একুশের চেতনায় আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধ হয়েছে এবং আমরা স্বাধীন বাংলাদেশ পেয়েছি। সেই ঐতিহ্যের ইতিহাসের ধারায় নতুন প্রজন্মকে দেশপ্রেম, অসাম্প্রদায়িকতা, মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ করে জাতিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে তিনি আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্তের ওপর গবেষণা ও লেখনীর জন্য ইত্তেফাকের সহকারী সম্পাদক মিনার মনসুরকে শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত স্মৃতিপদক প্রদান ও সম্মাননা এবং ব্যারিস্টার এ রসুলের ওপর গবেষণা লেখনীর জন্য গবেষক মামুন সিদ্দিকীকে ব্যারিস্টার এ রসুল স্মৃতিপদক প্রদানসহ সম্মাননা প্রদান করা হয়।

অনুভূতি প্রকশ করতে গিয়ে মিনার মনসুর বলেন, বাংলাদেশ বিভিন্ন অপশক্তির ষড়যন্ত্রে অন্ধকারে ঢেকে যাচ্ছে, অনেক অন্ধকার আবারও এ জাতিকে চোখ রাঙ্গাচ্ছে। এ সময়ে অসাম্প্রদায়িক চেতনায় সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।

কবি জয়দুল হোসেন বলেন, নানা প্রতিকূল বৈরী পরিবেশেও সাহিত্য একাডেমি সৃজনশীল, বাঙালি জাতিসত্তার নানা কর্মকা- অব্যাহত রেখেছে এবং আগামী দিনেও রাখবে। সাহিত্য একাডেমির কার্যক্রমে যারা উৎসাহ অনুপ্রেরণা এবং অংশগ্রহণ করে তাদের প্রতি তিনি গভীর কৃতজ্ঞতা জানান।

অন্য বক্তারা অসাম্প্রদায়িক চেতনায় সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানান।

খবরটি পঠিত হয়েছে ১০১ বার
font
font
সর্বাধিক পঠিত
আজকের ভিউ
পুরোন সংখ্যা
Click Here
সম্পাদক - আলতামাশ কবির । ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক - খন্দকার মুনীরুজ্জামান । ব্যবস্থাপনা সম্পাদক - কাশেম হুমায়ুন ।
সম্পাদক কর্তৃক দি সংবাদ লিমিটেড -এর পক্ষে ৮৭, বিজয়নগর, ঢাকা থেকে মুদ্রিত এবং প্রকাশিত।
কার্যালয় : ৩৬, পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০। ফোন : ৯৫৬৭৫৫৭, ৯৫৫৭৩৯১। কমার্শিয়াল ম্যানেজার : ৭১৭০৭৩৮
ফ্যাক্স : ৯৫৫৮৯০০ । ই-মেইল : sangbaddesk@gmail.com
Copyright thedailysangbad © 2017 Developed By : orangebd.com.
close