logo

ঢাকা, শুক্রবার ৫ ফাল্গুন, ১৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৭

orangebd logo
সব দলের অংশগ্রহণ না থাকলে নির্বাচন বিতর্কিত হবেই : সিইসি
নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

নির্বাচনে সব দলের অংশগ্রহণ না থাকলে নির্বাচন বিতর্কিত হবেই। তাই সব দলের অংশগ্রহণে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন সম্পন্ন করাই প্রধান চ্যালেঞ্জ বলে মনে করেন সদ্য দায়িত্ব গ্রহণ করা প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদা। একাদশ সংসদ নির্বাচনে সব রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার লক্ষ্য নির্ধারণ করেছেন দেশের দ্বাদশ এই সিইসি। গতকাল জাতীয় স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের এবং কমিশনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে প্রথম পরিচিতিমূলক সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

বৃহস্পতিবার সকালে নবনিযুক্ত সিইসির নেতৃত্বে অন্য চার কমিশনার মাহবুব তালুকদার, মো. রফিকুল ইসলাম, কবিতা খানম ও ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাহাদৎ হোসেন সাভার স্মৃতিসৌধে পুষ্পার্ঘ অর্পণের মাধ্যমে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। স্মৃতিসৌধে সংরক্ষিত পরিদর্শন বইতেও সই করেন তারা। শ্রদ্ধা জানানো শেষে সিইসি সাংবাদিকদের বলেন, সব দলের অংশগ্রহণে একটি অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন উপহার দেয়াই প্রধান চ্যালেঞ্জ। চ্যালেঞ্জিং হলেও নির্বাচন কমিশনে আন্তরিকভাবে কাজ করব। দায়িত্ব পালনের মধ্য দিয়ে সফলতা অর্জনই আমাদের লক্ষ্য হবে। সরকার বা কোন পক্ষের প্রভাবের ঊধর্ে্ব থেকে নিরপেক্ষভাবে সাংবিধানিক দায়িত্ব পালন করতে চাই। কমিশনের ওপর অর্পিত দায়িত্ব সার্থকভাবে পালনে সবার সহযোগিতাও চান নতুন সিইসি।

জাতীয় স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা জানানো শেষে আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে যান তারা। সেখানে ইসি সচিবালয়ের সচিব ও কর্মকর্তাদের সঙ্গে পরিচিতিমূলক বৈঠক হয়। বুধবার শপথ নেয়া নতুন ইসির এটাই প্রথম বৈঠক। বৈঠকে সচিব মোহাম্মদ আবদুল্লাহ একটি ধারণাপত্র উপস্থাপন করেন। যেখানে ইসি সচিবালয়ের সার্বিক অগ্রগতি, কাজের পরিধি-কাঠামো ও পরবর্তী পদক্ষেপগুলো তুলে ধরা হয়। বৈঠকে সিইসিসহ পাঁচ কমিশনার ও কর্মকর্তারা বিভিন্ন প্রসঙ্গে কথা বলেন। তবে সব দলের অংশগ্রহণ ও সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে বেশি আলোচনা হয়। বৈঠকে উপস্থিত এমন একাধিক কর্মকর্তা সব দলের অংশগ্রহণের বিষয়ে সিইসি জোর দিয়েছেন বলে জানান।

বৈঠকে নুরুল হুদা বলেন, এই বাংলাদেশ কতগুলো অত্যন্ত সফল নির্বাচন উপহার দিয়েছে, আর যে নির্বাচনগুলো বিতর্কিত ছিল, তা কেন বিতর্কিত ছিল, তা বিশ্লেষণে আমি যাব না। একটা কথাই বলতে পারি, আপনারা অনেকেই বলেছেন যে ইনক্লুসিভ নির্বাচন ছিল না বলেই বিতর্কিত ছিল। নির্বাচন যদি প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক না হয়, যদি সব দলের অংশগ্রহণ না থাকে, সেক্ষেত্রে নির্বাচন বিতর্কিত হবেই। সুতরাং আমরা আশা করব, সব দল নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে। আমার একটাই কথা, সম্পূর্ণ নিরপেক্ষ দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে আমরা কাজ করতে বদ্ধপরিকর। দল মত নির্বিশেষে সব কিছুর ঊধর্ে্ব থেকে নিরপেক্ষভাবে দায়িত্ব পালন করব।

সদ্য দায়িত্ব গ্রহণ করা সিইসি বলেন, সবার আগ্রহ আমাদের নিয়ে, অতীতে কখনো এমনটি হয়নি। সাধারণ মানুষ, দল, আন্তর্জাতিক সংস্থা সবাই তাকিয়ে আছে আমাদের দিকে। আশা করি, সবার কাছে গ্রহণযোগ্য নির্বাচন উপহার দিতে পারব। অনিয়মের বিষয়ে আমাদের অবস্থান জিরো টলারেন্স। কোন পর্যায়ের কাউকে রেহাই দেয়া হবে না। আমরা প্রাইভেটলি যে আলোচনা করেছি, তাতেও আমরা বলেছি সম্পূর্ণ নিরপেক্ষতার নির্বাচনী দায়িত্ব পালন করব।

দেশের দ্বাদশ সিইসি ইসি কর্মকর্তাদের নির্ভয়ে দায়িত্ব পালনে অভয় দিয়ে বলেন, ইসির দক্ষতা ও মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সক্ষমতার বিষয়ে কোন সন্দেহ থাকার কোন কারণ নেই। যে দক্ষ জনবল রয়েছে তাতে বাংলাদেশে ভালো নির্বাচন উপহার দেয়া সম্ভব হবে। শুধু একটা না, সামনে যেসব নির্বাচন আসবে তা দৃঢতার সঙ্গে মোকাবিলা করব।

ইসির সফল হওয়ার ক্ষেত্রে গণমাধ্যম ও নাগরিক সমাজের সমর্থনের গুরুত্বও তুলে ধরে তিনি বৈঠকে বলেন, অংশীজনরা বলেছে- শুধু নির্বাচন কমিশনের ওপরে দায়িত্ব চাপিয়ে দিলে ভালো নির্বাচন সম্ভব নয়। স্টেকহোল্ডার যারা আছে, তারা যদি সহযোগিতা না করে এবং অংশগ্রহণ না করে, তা হলে সম্ভব নয়।

চার কমিশনারও নিরপেক্ষভাবে দায়িত্ব পালন ও সুষ্ঠু নির্বাচনের কথা বলেন বৈঠকে।

খবরটি পঠিত হয়েছে ১০১ বার
font
font
সর্বাধিক পঠিত
আজকের ভিউ
পুরোন সংখ্যা
Click Here
সম্পাদক - আলতামাশ কবির । ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক - খন্দকার মুনীরুজ্জামান । ব্যবস্থাপনা সম্পাদক - কাশেম হুমায়ুন ।
সম্পাদক কর্তৃক দি সংবাদ লিমিটেড -এর পক্ষে ৮৭, বিজয়নগর, ঢাকা থেকে মুদ্রিত এবং প্রকাশিত।
কার্যালয় : ৩৬, পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০। ফোন : ৯৫৬৭৫৫৭, ৯৫৫৭৩৯১। কমার্শিয়াল ম্যানেজার : ৭১৭০৭৩৮
ফ্যাক্স : ৯৫৫৮৯০০ । ই-মেইল : sangbaddesk@gmail.com
Copyright thedailysangbad © 2017 Developed By : orangebd.com.